তুলসী পাতার উপকারিতা

তুলসী শুভবিডি

তুলসী (ইংরেজি: holy basil, বা tulasī) (বৈজ্ঞানিক নাম: Ocimum Sanctum) একটি ঔষধিগাছ। তুলসী অর্থ যার তুলনা নেই। তুলসী গাছ লামিয়াসি পরিবারের অন্তর্গত একটি সুগন্ধী উদ্ভিদ। হিন্দু সম্প্রদায়ের কাছে এটি একটি পবিত্র উদ্ভিদ হিসাবে সমাদৃত। ব্রহ্মকৈবর্তপুরাণে তুলসীকে ‘সীতাস্বরূপা’, স্কন্দপুরাণে ‘লক্ষীস্বরূপা’, চর্কসংহিতায় ‘বিষ্ণুপ্রিয়া’, ঋকবেদে ‘কল্যাণী’ বলে আখ্যায়িত করা হয়েছে।

তুলসী পাতার ১০টি উপকারিতা

১. নিয়মিত তুলসী পাতার রস খেলে উচ্চ রক্তচাপ ও কোলেস্টেরল কমিয়ে হৃৎপিণ্ডে রক্ত সরবরাহের মাত্রা ঠিক রাখে। লিভারের কার্যক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়।

২. তুলসীর রস হাড়ের গিঁটে ব্যথা দূর করে। শরীরের কাটাছেঁড়া দ্রুত শুকাতে অবদান রাখে এই তুলসী।

৩. শীতে বাচ্চাদের তুলসী পাতার রস খাওয়ালে কৃমি দূর হবে এবং মাংসপেশি ও হাড় হবে শক্তিশালী।

৪. জ্বর হলে পানির মধ্যে তুলসী পাতা, গোল মরিচ এবং মিশ্রী মিশিয়ে ভাল করে সেদ্ধ করে নিন। অথবা এগুলো দিয়ে বড়ি বানিয়ে দিনে তিন থেকে চারটা বড়ি খান। জ্বর খুব তাড়াতাড়ি সেরে যাবে।

৫. কাশি হলে তুলসী পাতা এবং আদা একসঙ্গে পিষে মধুর সঙ্গে মিশিয়ে খান। এতে উপকার পাবেন।

৬. ডায়রিয়া হলে ১০ থেকে বারোটি পাতা পিষে রস খেয়ে ফেলুন, দ্রুত সুস্থ হয়ে যাবেন।

৭. মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে দিনে ৪ থেকে ৫ বার তুলসী পাতা চিবাতে পারেন। দুর্গন্ধ দূর হবে।

৮. শরীরের কোন অংশ পুড়ে গেলে তুলসীর রস এবং নারকেলের তেল ফেটিয়ে লাগান, এতে জ্বালাপোড়া কমে যাবে। পোড়া জায়গাটা তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাবে এবং পোড়া দাগও উঠে যাবে।

৯. শরীরে কোনরকম ঘা হলে তুলসী পাতা এবং ফিটকিরি একসঙ্গে পিষে লাগান। উপকার পাবেন।

১০. ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ানোর জন্য, ত্বকের বলীরেখা এবং ব্রণ দূর করতে তুলসী পাতা পিষে মুখে লাগান।

2 Comments

  1. Thank you for sharing excellent informations. Your site is very cool. I am impressed by the details that you?¦ve on this blog. It reveals how nicely you understand this subject. Bookmarked this web page, will come back for more articles. You, my friend, ROCK! I found just the info I already searched all over the place and simply couldn’t come across. What a perfect web site.

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*