টমেটোর উপকারীতা



টমেটোর উপকারীতা

উদ্ভিদ বিজ্ঞানের দৃষ্টিতে টমেটো একটি ফল হলেও, সবজি হিসেবেই সারা বিশ্বে টমেটো পরিচিত। আকর্ষণীয়তা, ভালো স্বাদ, উচ্চ পুষ্টিমান এবং বহুবিধ উপায়ে ব্যবহার যোগ্যতার কারণে সবর্ত্রই এটি জনপ্রিয়। এ সবজিতে প্রচুর পরিমাণে আমিষ, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন এ এবং ভিটামিন সি রয়েছে।

টমেটোর যত গুণাগুণঃ

১) টমেটোতে রয়েছে প্রচুর আঁশ, পটাসিয়াম এবং ভিটামিন সি। তাই হৃদযন্ত্রকে সুস্থ রাখতে টমেটোর বিকল্প নেই।

২) এতে রয়েছে প্রচুর ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন কে, যা দেহের হাড় মজবুত করে এবং ভাংগা হাড়কে জোড়া লাগায়।

৩) টমেটো মানুষের দৃষ্টিশক্তি বাড়ায়। এতে যে ভিটামিন এ রয়েছে, সেটা রাতকানা রোগ নিরাময় করে।

৪) এতে থাকা ভিটামিন এ আমাদের চুল পড়া কমায় এবং চুলকে মজবুত করে।

৫) টমেটো কিডনিতে পাথর জমা রোধ করে।

৬) দেহের অতিরিক্ত চর্বি দূর করতে সাহায্য টমেটো।

৭) যাদের বাতের ব্যথা রয়েছে, তাদের জন্য টমেটো ব্যথানাশক হিসেবে কাজ করে। এটি খেলে বাতের বাতের ব্যথা অনেকাংশে দূর হয়।

৮) ত্বককে ক্ষতিকর সূর্যরশ্মি, তেজস্ক্রিয় পদার্থ থেকে রক্ষা করে টমেটো।

৯) যাদের উচ্চরক্তচাপের সমস্যা আছে, তাদের জন্য টমেটো অনেক বেশি ফলদায়ক।

১০) গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিদিন ২৫ গ্রাম টমেটো খেলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করাটা অনেক বেশি সহজ হয়ে যায়।

১১) দেহের পানিশূন্যতা রোধে টমেটো হচ্ছে প্রাকৃতিক ওষুধের মতো। দেহে শক্তি জোগায় এই টমেটো। সর্বোপরি, সহজলভ্য এ সবজি অসংখ্য স্বাস্থ্যগুণে ভরপুর। কাচা, পাকা বা রান্না যাই হোক না কেন টমেটো স্বাদ ও পুষ্টিগুণে অনন্যসাধারণ।

✍️ মনিকা নাঈম



1 Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*