ইউটিউবিং এর মৌলিক বিষয়বস্তু



ইউটিউব একটি ভিডিও আদান-প্রদান করার ওয়েবসাইট। ওয়েব ২.০ এর অন্যতম কর্ণধার ইউটিউব বর্তমান ইন্টারনেট জগতের একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং সাইট যা এর সদস্যদের ভিডিও আপলোড, দর্শন আর আদান-প্রদানের সুবিধা দান করে আসছে। এই সাইটটিতে আরো আছে ভিডিও পর্যালোচনা, অভিমত প্রদান সহ নানা প্রয়োজনীয় সুবিধা।

ফেব্রুয়ারি ২০০৫ সালে প্রতিষ্ঠিত এই প্রতিষ্ঠানটির পেছনে ছিলেন মূলত পেপ্যাল প্রতিষ্ঠানের তিন প্রাক্তন চাকুরীজীবি, চ্যড হারলি, স্টিভ চ্যন আর বাংলাদেশী বংশদ্ভুত জাওয়েদ করিম।

ইউটিউবিং এর মৌলিক বিষয়বস্তুঃ

বিষয় নির্ধারণঃ আপনি কি বিয়য় নিয়ে ইউটিউবিং শরু করবেন তা আগে নির্ধারণ করতে হবে। যে বিষয়টা আপনি নিজে থেকে করতে পারবেন সেই বিষয়ে বেশি প্রাধান্য দিতে হবে এবং সেই বিষয় নিয়ে অন্য কোনো ইউটিউব চ্যানেল আছে কি না? যদি থাকে তাহলে তারা কি ধরনের ভিডিও আপলোড করতেছে তা আবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে। একটি চ্যানেলে একটি বিষয় নিয়ে ভিডিও আপলোড করতে হবে। একটি চ্যানেলে ৪/৫ টা বিষয় নিয়ে ভিডিও আপলোড করা যাবে না। উদাহরণঃ আপনি যদি পড়াশোনা নিয়ে ভিডিও আপলোড করেন তাহলে সবগুলো ভিডিও পড়াশোনা সম্পর্কিত হতে হবে, অন্য কোনো বিষয়ে ভিডিও আপলোড করা যাবে না।

কন্টেন্টঃ কন্টেন্ট অবশ্যই নিজের তৈরী হতে হবে। অন্যের কন্টেন্ট কপি করা যাবে না।কন্টেন্ট সবসময় ইউনিক হতে হবে। আপনার কন্টেন্ট যদি ভিউয়ারদের ভালো লাগে তাহলে আপনার চ্যানেল জনপ্রিয় হতে বেশি সময় লাগবে না।

থাম্বনেইলঃ থাম্বনেইল অবশ্যই আই ক্যাচিং হতে হবে। থাম্বনেইল দেখেই যেনো ভিউয়ারস ভিডিওতে ক্লিক করে। তবে একটি বিষয় অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে , থাম্বনেইলে যে বিষয়গুলো যোগ করবেন সেই বিষয়গুলো যেনো ভিডিওতেও থাকে।

টাইটেলঃ ভিডিওর মূল বিষয়টা টাইটেলে দিতে হবে। টাইটেলে আজেবেজে কিছু লেখা যাবে না। ভিডিওর সাথে সম্পর্ক রেখেই টাইটেল দিতে হবে। অনেক সময় ভিউয়ারস টাইটেল দেখেও ভিডিওতে ক্লিক করে।

ডেসক্রিপশনঃ ভিডিওতে যা বুঝাতে চেয়েছেন তা ছোট করে ডেসক্রিপশনে দিয়ে দিবেন। ভিডিও সম্পর্কীত কিওয়ার্ড ডেসক্রিপশনে দিতে পারেন। আপনার ওয়েবসাইট , সোশ্যাল মিডিয়ার ঠিকানা ডেসক্রিপশনে দিতে পারেন।

ট্যাগঃ ভিউয়ারস কি লিখে সার্চ দিলে আপনার ভিডিও দেখতে পারবে মূলত সেই বিষয় গুলো ট্যাগে দিবেন। ভিডিওর টাইটেল অবশ্যই ট্যাগে যুক্ত করবেন। ভিডিওতে ভালো ট্যাগ ব্যবহারের জন্য বিভিন্য টুলস এর সাহায্য নেয়া যেতে পারে। ট্যাগ নির্বাচন করার সহজ উপায় হলোঃ আপনার ভিডিওর ৮০% টাইটেল ইউটিউব সার্চ বক্সে লিখবেন এবং সেখানে অনেক গুলো লেখা সুপারিশ করবে, এর মধ্য থেকে যে লেখা গুলো আপনার ভিডিওর সাথে মিলে যাবে, সেগুলা আপনি আপনার ট্যাগে যুক্ত করতে পারেন।

এই কাজ গুলোই শেষ না। ভিডিও আপলোড করার পর ভিডিওটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন, পরিবারের সদস্যদের সাথে শেয়ার করবেন, সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করবেন।



Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*