নওগাঁ জেলার দর্শনীয় স্থান সমূহ



নওগাঁ জেলার দর্শনীয় স্থান সমূহঃ

ক্রমিক নাম কিভাবে যাওয়া যায়
কুসুম্বা মসজিদ, মান্দানওগাঁ – রাজশাহী মহাসড়কে বাসযোগে ৪০ মিনিট সময় লাগবে
পাহাড়পুর বৌদ্ধ বিহার, বদলগাছীনওগাঁ বালুডাংগা বাস টার্মিনাল হতে সরাসরি বাসযোগে ঐতিহাসিক পাহাড়পুরে যাওয়া যায় |আনুমানিক দূরত্ব আনুমানিক ৩২ কিঃমিঃ বাসভাড়া- ৩০- ৪০ টাকা
বলিহার রাজবাড়ী, নওগাঁ সদরঃজেলা সদর হতে দূরত্ব ২০ কিঃ মিঃ। সড়কপথে যেকোন যানবাহনে যাওয়া যায় ।
পতিসর কাচারীবাড়ী, আত্রাইজেলা সদর হতে দূরত্ব ৪৮ কিঃ মিঃ। সড়কপথে যেকোন যানবাহনে যাওয়া যায়।
জবাইবিলজেলা শহর হতে বাসযোগে আনুমানিক ২ ঘন্টা থেকে ২ঘন্টা ৩০ মিনিট লাগবে
জগদ্দল বিহার, ধামইরহাট জেলা সদর হতে দূরত্ব ৫৪ কিঃ মিঃ। সড়কপথে যেকোন যানবাহনে যাওয়া যায়
ভীমের পান্টি, ধামইরহা জেলা সদর হতে দূরত্ব ৬৭ কিঃ মিঃ। সড়কপথে যেকোন যানবাহনে যাওয়া যায়।
দিব্যক জয় স্তম্ভ, পত্নীতলাঃজেলা সদর হতে দূরত্ব ৫৭ কিঃ মিঃ। সড়কপথে যেকোন যানবাহনে যাওয়া যায়
মাহি সন্তোষ, ধামইরহাটজেলা সদর হতে দূরত্ব ৬২ কিঃ মিঃ। সড়কপথে যেকোন যানবাহনে যাওয়া যায়
১০আলতাদিঘী , ধামইরহাটজেলা সদর হতে দূরত্ব ৫৬ কিঃ মিঃ। সড়কপথে যেকোন যানবাহনে যাওয়া যায় ।
১১কুশুম্বা মসজিদ নওগাঁ হতে রাজশাহী মহাসড়কের মান্দা ব্রিজ থেকে পশ্চিম দিকে কুশুম্বা নামক স্থানের ৪০০ মিটার উত্তরে ঐতিহাসিক কুশুম্বা শাহী মসজিদ ও কুশুম্বা দিঘি অবস্থিত।
১২ঠাকুর মান্দা মন্দির নওগাঁ, রাজশাহী রোডে মান্দা ব্রিজ থেকে হাজী গোবিন্দপুর মোড় থেকে সোজা পশ্চিম দিকে ঠাকুর মান্দা বিল পার হয়ে কাঁচা রাস্তার সাথে অবস্তিত। তবে বর্ষা মৌসুমে প্রায় ১ কিলো মিটরি রাস্তা পানির কারনে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। ফলে সে সময় নৌকা যোগাযোগের ব্যবস্থা থাকে। তবে মান্দা থানার উপর দিয়ে পরানপুর হয়ে শড়ক পথে ঠাকুর মান্দা যাওয়ার এ রাস্তাটি সারা বছরই চলাচল উপযোগী।
১৩হাপানিয়া খেয়া ঘাটসাপাহার উপজেলার জিরো পয়েন্ট হতে বাস/অটোরিক্সা/ভাড়ায় চালিত মটর সাইকেল যোগে গোয়ালা ইউনিয়নে যেতে হবে। তার এখান হতে পায়ে হেটে বা ভ্যানে করে হাপানিয়া খেয়া ঘাটে যেতে হবে। এই হাপানিয়া ঘাট থেকেই পূর্নভবা নদীর অপরুপ দৃশ্য অবলোকন করা যায়। উপজেলা সদর হতে ১৫ কিঃমিঃ দূরত্ব।

তিথ্যসূত্রঃ জেলা ওয়েবসাইট

বগুড়া জেলার দর্শনীয় স্থান সমূহ

greenscreen_in_bd

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*