কিছু উদ্ভিদ ও প্রাণীর বৈজ্ঞানিক নাম

ShuvoBD

দ্বিপদী নামকরণ বলতে বোঝায় দুটি পদের সমন্বয়ে উদ্ভিদ ও প্রাণীর বৈজ্ঞানিক নাম করনের পদ্ধতি। এই নামকরণ ল্যাটিন ভাষায় করা হয় এবং এর দুইটি অংশ থাকে। গণ নামের শেষে প্রজাতিক পদ যুক্ত করে প্রতিটি জীবের নামকরণের পদ্ধতিকে দ্বিপদ নামকরণ বলে। এই নামকে বৈজ্ঞানিক নামও বলা হয়। Systema Naturae গ্রন্থের দশম সংস্করণে (১৭৫৮) ক্যারোলাস লিনিয়াস জীবের নামকরণের ক্ষেত্রে দ্বিপদ নামকরণ নীতি প্রবর্তন করেন।

কিছু উদ্ভিদ ও প্রাণীর বৈজ্ঞানিক নাম:

সাধারণ নাম → বৈজ্ঞানিক নাম

০১। মানুষ — Homo sapiens
০২। গরু — Boss indica
০৩। ছাগল — Capra hircus
০৪। ইঁদুর — Bandicota benglalensis
০৫। বিড়াল — Felis catus
০৬। খরগোশ — Oryctolagus cuniculus
০৭। সিংহ — Panthera leo
০৮। রয়েল বেঙ্গল টাইগার — Panthera tigris
০৯। মশা — Culex pipiens
১০। মাছি — Musca domestica
১১। আরশোলা — Periplaneta americana
১২। টিকটিকি — Hemidactylus brookii
১৩। মৌমাছি — Apis indica
১৪। প্রজাপতি — Pieris brassicae
১৫। কুনোব্যাঙ — Bufo/­Duttaphrynus melanostictus
১৬। গোখরা সাপ — Naja naja
১৭। কচ্ছপ — Lessemys punctata
১৮। কুমির — Crocodylus niloticus
১৯। কলেরা জীবাণু — Vibrio cholera
২০। ম্যালেরিয়া জীবাণু—Plasomodium vivax
২১। ইলিশ — Tenualosa illisha
২২। রুই — Labeo rohita
২৩। কাতলা — Catla catla
২৪। কই — Anabas testudineus
২৫। টাকি — Channa punctatus
২৬। মহাশোল — Tor tor
২৭। বোয়াল — Wallago attu
২৮। বাগদা চিংড়ি — penaeus monodon
২৯। গলদা চিংড়ি — Macrobrachium rosenbergii
৩০। চিংড়ি — Macrobrachium malcolmsonii
৩১। দোয়েল — Copsychus saularis
৩২। কবুতর — Columba livia
৩৩। চড়ুই — Passer dometicus
৩৪। ময়ূর — Pavo cristatus
৩৫। শামুক — Pila globosa
৩৬। কেঁচো — Metaphira posthuma
৩৭। ঝিনুক — Lamellidens marginalis
৩৮। ফিতাকৃমি — Taenia solium
৩৯। গোলকৃমি — Ascaris lumbricoides
৪০। চোখ কৃমি — Loa loa
৪১। কাঁকড়া — Carcinus manius
৪২। ধান — Oryza sativa
৪৩। গম — Triticum aestivum
৪৪। ভুট্টা — Zea mays
৪৫। গোল আলু — Solanum tuberosum
৪৬। পিঁয়াজ — Allium cepa
৪৭। আদা — Zingiber officinale
৪৮। রসুন — Allium sativum
৪৯। হলুদ — Curcuma domestica
৫০। মসুর — Lens culinaris
৫১। সরিষা — Brassica napus
৫২। ছোলা — Cicer arietinum
৫৩। মোটর — Pisum sativum
৫৪। শীম — Lablab purpurius
৫৫। খেসারী — Lathyrus sativus
৫৬। সয়াবিন — Glycine max
৫৭। তিল — Sesamum indicum
৫৮। মুলা — Raphanus sativus
৫৯। পুঁইশাক — Basella alba
৬০। শসা — Cucumis sativus
৬১। লাউ — Lagenaria vulgaris
৬২। বেগুন — Solanum melongena
৬৩। বাঁধাকপি — Brassica oleracea
৬৪। টমেটো — Lycopersicon esculentum
৬৫। তেজপাতা — Cinnamomum tamala
৬৬। আম — Mangifera indica
৬৭। জাম — Syzygium cumini
৬৮। কাঁঠাল — Artocarpus heterophyllus
৬৯। কলা — Musa sapientum
৭০। লিচু — Litchi chinensis
৭১। নারকেল — Cocos nucifera
৭২। আনারস — Ananas comosus
৭৩। পেয়ারা — Psidium guajava
৭৪। বেল — Aegle marmelos
৭৫। কুল/বরই — Zizyphus mauritiana
৭৬। পেঁপে — Carica papaya
৭৭। কফি — Coffea arabica
৭৮। চা — Camellia sinensis
৭৯। তামাক — Nicotiana tabacum
৮০। পাট — Corchorus capsularis
৮১। সেগুন — Tectona grandis
৮২। শাল/গজারি — Shorea robusta
৮৩। সুন্দরী — Heritiera fomes
৮৪। মেহগনি — Swietenia mahagoni
৮৫। শিশু — Dulbergia sissoo
৮৬। বাসক — Adhatoda vasica
৮৭। থানকুনি — Centella asiatica
৮৮। তুলসী — Ocimum sanctum
৮৯। চাপালিশ — Artocarpus chaplasha
৯০। কালমেঘ — Andrographis paniculata
৯১। নিম — Melia azadirachta
৯২। গাঁদা — Tagetes erecta
৯৩। জবা — Hibiscus rosa-sinensis
৯৪। পদ্মফুল — Nelumbo nucifera
৯৫। শাপলা — Nymphaea nouchali
৯৬। রঙ্গন — Ixora coccinea
৯৭। রজনীগন্ধা — Polianthes­ tuberosa
৯৮। গন্ধরাজ — Gardenia jasminodes
৯৯। সূর্যমুখী — Helianthus annuus
১০০। কৃষ্ণচূড়া — Delonix regia

greenscreen_in_bd

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*